ওয়ার্ডপ্রেস থিম মার্কেটিং টিপস

মাঝে মাঝে অনেকে আমাকে ফেসবুক ইনবক্সে জিজ্ঞেস করেন ভাই ওয়ার্ডপ্রেস থিম এর সেল বাড়াবো কিভাবে। কিভাবে মার্কেটিং করতে পারি। ছোট্ট ছোট্ট করে টিপস দিলেও আজ তাদের জন্য একসাথে করে পোস্টটি লিখতে বসলাম। আমি আমার মার্কেটিং এর শুরু থেকে ওয়ার্ডপ্রেস থিম এর এফিলিয়েট করে আসছি। সেই অভিজ্ঞতা থেকে শেয়ার করছি।এটা ডিজিটাল প্রোডাক্ট মেকার ভাইদেও কাজে দিবে আশা করি।

১। ফ্রিবিঃ

দ্রুত ও টার্গেটেড ক্লায়েন্ট পেতে অন্যতম বেস্ট ওয়ে হলো ফ্রিবি প্রোডাক্ট দেয়া। কিন্তু ফ্রিবি দেয়ার ক্ষেত্রে একটা ভুল আমরা অধিকাংশরা করি সেটা হলো ডাইরেক্ট ডাউনোলোড লিংক দিয়ে। এতে করে দেখা যায় শুধু ওই প্রোডাক্টেই ট্রাফিক আসে। হয়তো ২-১ টা ক্লায়েন্টও পান কিন্তু লাইফটাইম বিজনেস করতে হলে আপনাকে তাদের ধরে রাখতে হবে। সেটার জন্য আমরা তাদের ইমেইল লিস্ট কালেক্ট করতে পারি। ইমেইল লিস্ট কালেক্ট অনেকগুলো উপায় আছেঃ

১। যদি পারেন একটি মেম্বারশীপ সাইট তৈরী করুন। যারা আপনার থিম ডাউনোলোড করতে চাইবে তাদেরকে আপনার সাইটে সাইন করতে হবে।

২। যদি নিজের কোন সাইট না থাকে সেলফাই এর মাধ্যমে এই কাজটা করতে পারেন। কিছুদিন আগে সেলফাই নিয়ে আমি একটি লেখা লিখেছিলাম।

৩। বিভিন্ন অটোরেস্পন্ডার এর মাধ্যমেও ইমেইল লিস্ট কালেক্ট করতে পারেন। চিপ রেটের মধ্যে আমার কাছে মেইলারলাইট পছন্দ।

প্রয়োজনীয় রিসোর্সঃ

ডোমেইন হোস্টিং কিনুন এখান থেকে

সেলফাই নিয়ে লেখা পড়ুন এখানে

মেইলারলাইটে জয়েন করতে ক্লিক করুন এখানে

২। এফিলিয়েট প্রোগ্রামঃ

ওয়ার্ডপ্রেস থিম মার্কেটিং এর জন্য আরো একটি ভালো মাধ্যম হলো এফিলিয়েট প্রোগ্রাম চালু করা। যারা মূলত নিজের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে থিম সেল করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য অন্যতম বেস্ট ওয়ে বলা যেতে পারে এটাকে।ভালো প্রোডাক্ট ও কমিশন ভালো দিলে মার্কেটিং নিয়ে আপনাকে চিন্তা করতে হবে না। মার্কেটাররাই আপনার মার্কেটিং করে দিবে।

৩। সলো এডঃ

আমরা অনেকেই হয়তো মনে করি সলো এড সম্ভবত শুধু মেকমানি, হেলথ নিশের জন্য। কিন্তু আমরা চাইলে আমাদের ওয়ার্ডপ্রেস থিমের জন্যও সলো এড ইউজ করতে পারি। এক্ষেত্রে অবশ্যই সুন্দর একটি ল্যান্ডিং পেজ এ অপ্টিন ফর্ম বসিয়ে সেগুলোকে রিডাইরেক্ট করে আপনার সাইটে নিয়ে যাবেন। এতে ইমেইল লিস্টগুলো আপনার কাছে থেকে যাবে সাথে সেলও পাচ্ছেন। সলো এড নিয়ে টিপসঃ সলো এডের জন্য বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস না খুজে ভালো ভালো ব্লগসাইটে কন্টাক্ট করুন। যারা কিনা তাদের সাইটে নিয়মিত ইমেইল লিস্ট কালেক্ট করে। জিজ্ঞেস করুন তারা সলো এড দেয় কিনা। তাহলে তাদের মাধ্যমে দিন।

৪। ব্লগিংঃ

ইন্টারেস্ট ও টার্গেটেড বায়ার ট্রাফিক পেতে অন্যতম উপায় হলো ব্লগিং। ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে বিভিন্ন টিপস, প্রবলেম সলভ বা টিউটোরিয়াল নিয়ে ব্লগ পোস্ট লিখতে পারেন। আর সবসময় ভালো ও ইউনিক কন্টেন্ট লেখার চেষ্টা করবেন নাহয় র‍্যাংক হওয়ার সম্ভাবনা কম। র‍্যাংক না পেলে আপনার ট্রাফিক পাওয়ার সম্ভাবনাও কম।

৫। ভিডিও মার্কেটিংঃ

সহজে সুপার টার্গেটেড ট্রাফিক পাওয়ার অন্যতম আরেকটি ওয়ে হলো ভিডিও মার্কেটিং। ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে বিভিন্ন টিপস, প্রবলেম সলভ বা টিউটোরিয়াল ইত্যাদির উপর ভিডিও বানিয়ে ইউটিউবে আপলোড করুন সেখানে আপনার প্রোডাক্টের লিংক দিন। র‍্যাংক করলে এখান থেকেই আপনি রিগুলারলি ভালো ট্রাফিক পাবেন।

৬। পিপিসিঃ

যারা পেইড মার্কেটিং করতে চান এবং ইন্সট্যান্টলি ভালো সেল পেতে চান তাদের জন্য ভালো সবচেয়ে ভালো পিপিসি বা পে পার ক্লিক। এজন্য আপনি গুগুল এডওয়ার্ড, ফেসবুক এবং বিং কে বেচে নিতে পারেন।

৭। সোশ্যাল মিডিয়াঃ

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেও আপনার ওয়ার্ডপ্রেস থিম প্রমোট করতে পারেন। এ জন্য ফেসবুক,পিন্টারেস্ট,টুইটার ব্যবহার করতে পারেন। সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং নিয়ে অন্যদিন লিখবো।

আজ এ পর্যন্তই। সামনে আরো টিপস শেয়ার করব ততোদিন ভালো থাকুন ও নিয়মিত আমার ব্লগে চোখ রাখুন। ধন্যবাদ সবাইকে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

eighteen − 11 =