সম্পদশালী মানে উচ্চ বিলাসী জীবন নয় – ওয়ারেন বাফেট

অনেক টাকার মালিক হওয়া মানে এই নয় যে আপনাকে উচ্চ বিলাসী জীবন-যাপন করতে হবে। বরং আপনার দায়িত্ত হলো বঞ্চিত মানুষদের সুন্দর জীবন-যাপনে সাহায্য করা । ওয়ারেন বাফেট এর জীবন যাপন যেনো এর অনন্য এক দৃষ্টান্ত। বর্তমান দুনিয়ার শীর্ষ ধনীদের একজন তিনি। তাকে বিংশ শতকের সবচেয়ে সফল বিনিয়োগকারী হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তিনি মাল্টি-বিলিয়ন ডলার কনগ্লোমারেট ‘বার্কশায়ার হ্যাথাও’-এর মালিক এবং চেয়ারম্যান। তার বর্তমান সম্পদের পরিমান প্রায় সাড়ে সাত হাজার কোটি ডলার। বাংলাদেশী টাকার হিসেব নাহয় আপনিই কনভার্ট করে নিন। বিপুল ধনসম্পদের মালিক হওয়া সত্ত্বেও ওয়ারেন বাফেট অত্যন্ত মিতব্যয়ী। তিনি তার সম্পদের ৯৯ ভাগ জনকল্যাণমূলক কাজের জন্য দান করবেন বলে অঙ্গীকার করেন। ১৯৫৮ সালে বিয়ের আগে যে বাড়িটি কিনেছিলেন, এখনো তিনি ওমাহার সেই বাড়িতেই বাস করেন। যেই বাড়িটিতে নেই আলাদা কোন প্রাচীর বা সিমানা। এখনো নিজের গাড়ি নিজেই চালান। এর জন্য নেই আলাদা কোন ড্রাইভার। অনেকের ধারণা তার সকালের নাস্তা ৪-৫ ডলারের উপর নয়। সম্পদশালী হওয়া মানে উচ্চ বিলাসী জীবন নয় এমনটাই মনে করেন তিনি। বাফেট বলেন –  প্রকৃতপক্ষে আপনার যতটুকু দরকার তার বেশি কিছু কিনবেন না। আপনার সন্তানদেরও এমনটা ভাবতে ও করতে শেখান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

three × two =